ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের নিন্দা জানাল বিশ্ব

ইউক্রেনে রাশিয়ার পূর্বপরিকল্পিত, প্ররোচনাহীন ও অযৌক্তিক আক্রমণ বিশ্বজুড়ে নিন্দা কুড়িয়েছে।

রাশিয়াকে বিচ্ছিন্ন ও নিষিদ্ধ করা এবং ইউক্রেনকে সহায়তা প্রদানের জন্য বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সংগঠন দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে। এখানে থাকছে কয়েকটি প্রতিক্রিয়া:

কাউন্সিল অব ইউরোপ

“ইউরোপ এবং এটি যা বিশ্বাস করে, এমন সবকিছুর জন্য এটি এক অন্ধকার সময়।“ – মারিয়া পেজচিনোভিচ বুরিচ, কাউন্সিল অব ইউরোপের সেক্রেটারি জেনারেল।

২৫ ফেব্রুয়ারি, প্যান-ইউরোপিয় অধিকার সংস্থার কমিটি অব মিনিস্টারস এবং এর পার্লামেন্টে অংশগ্রহণ থেকে রাশিয়ার সকল প্রতিনিধিকে বহিস্কার করেছে কাউন্সিল অব ইউরোপ।

ইউরোপিয়ান কমিশন

“পুতিন একটি ইউরোপিয় বন্ধু দেশকে নিজের অধীন করার চেষ্টা করছেন। বলপ্রয়োগের মাধ্যমে তিনি ইউরোপের মানচিত্র নতুন করে আঁকার চেষ্টা করছেন। অবশ্যই তার পতন হতে হবে এবং সেটি হবেও।” – উরসুলা ফন ডের লায়েন, ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট

ন্যাটো

ক্রেমলিনের লক্ষ্য হলো তার নিজের প্রভাব পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা, সেসব বৈশ্বিক নিয়মনীতি ভেঙে ফেলা যেগুলো আমাদের কয়েক দশক ধরে সুরক্ষিত রেখেছে, এবং সেসব মূল্যবোধকে ধ্বংস করা, যেগুলো আমরা যত্নে আগলে রাখি।” – ন্যাটো সেক্রেটারি জেনারেল জেনস স্টোটেনবার্গ

ন্যাটো

অর্গানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ

“এটি শুধু ওএসসিই নীতির ভয়াবহ লঙ্ঘনই নয়, আরও গুরুত্বপূর্ণ হল, এখানে গভীর ঝুঁকির মুখে ফেলা হয়েছে লাখো মানুষের জীবন।” – জিবিগনিউ রাউ, পোল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং অর্গানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ-এর চেয়ারপার্সন ইন অফিস

অর্গানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ

জাতিসঙ্ঘ

“প্রেসিডেন্ট পুতিন, মানবতার দোহাই, আপনার সৈন্যদের রাশিয়ায় ফিরিয়ে নিন।” —আন্তোনিও গুতেরেস, জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব।

জাতিসঙ্ঘ